বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫২ অপরাহ্ন
মোট আক্রান্ত

৪০৩,০৭৯

সুস্থ

৩১৯,৭৩৩

মৃত্যু

৫,৮৬১

  • জেলা সমূহের তথ্য
  • ঢাকা ১১৯,৪১৮
  • চট্টগ্রাম ২০,৯০৩
  • বগুড়া ৮,০৩৪
  • কুমিল্লা ৭,৮৯৪
  • সিলেট ৭,৫৩৬
  • ফরিদপুর ৭,৩৯২
  • নারায়ণগঞ্জ ৭,১১৩
  • খুলনা ৬,৬১০
  • গাজীপুর ৫,৬৭৭
  • নোয়াখালী ৫,০৮৮
  • কক্সবাজার ৫,০৮৭
  • যশোর ৪,০৮০
  • ময়মনসিংহ ৩,৮১৫
  • বরিশাল ৩,৮১৫
  • মুন্সিগঞ্জ ৩,৬৭৩
  • দিনাজপুর ৩,৬০৯
  • কুষ্টিয়া ৩,৪৩৫
  • টাঙ্গাইল ৩,২৭৩
  • রাজবাড়ী ৩,১৫৪
  • রংপুর ২,৯৮৮
  • কিশোরগঞ্জ ২,৯৮০
  • গোপালগঞ্জ ২,৬৫০
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২,৪৯২
  • নরসিংদী ২,৪২৩
  • সুনামগঞ্জ ২,৩৮৮
  • চাঁদপুর ২,৩৫৩
  • সিরাজগঞ্জ ২,২৪২
  • লক্ষ্মীপুর ২,১৯১
  • ঝিনাইদহ ২,০৪১
  • ফেনী ১,৯৩৬
  • হবিগঞ্জ ১,৮০২
  • মৌলভীবাজার ১,৭৭২
  • শরীয়তপুর ১,৭৬৯
  • জামালপুর ১,৬৪৪
  • মানিকগঞ্জ ১,৫৬৩
  • চুয়াডাঙ্গা ১,৪৯৯
  • পটুয়াখালী ১,৪৯৫
  • মাদারীপুর ১,৪৯০
  • নড়াইল ১,৩৮৯
  • নওগাঁ ১,৩৪১
  • গাইবান্ধা ১,২১২
  • ঠাকুরগাঁও ১,২০৮
  • পাবনা ১,২০৩
  • নীলফামারী ১,১৪৫
  • জয়পুরহাট ১,১২৬
  • সাতক্ষীরা ১,১০৮
  • পিরোজপুর ১,১০৪
  • রাজশাহী ১,০৮৫
  • নাটোর ১,০৩৩
  • বাগেরহাট ১,০১১
  • মাগুরা ৯৪০
  • বরগুনা ৯২৮
  • রাঙ্গামাটি ৯২৬
  • কুড়িগ্রাম ৯২৫
  • লালমনিরহাট ৮৯৩
  • বান্দরবান ৮০৪
  • চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৭৮২
  • ভোলা ৭৬৯
  • নেত্রকোণা ৭২৯
  • ঝালকাঠি ৭২৩
  • খাগড়াছড়ি ৭১০
  • পঞ্চগড় ৬৬২
  • মেহেরপুর ৬৪৮
  • শেরপুর ৪৯৬
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট

লালমনিরহাটে পুজা মন্ডবের সরকারী বরাদ্দ থেকে চাঁদা নেয়ার অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি:-
  • প্রকাশিত সময় :- শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় পুজা মন্ডবের সরকারী বরাদ্দ থেকে চাঁদা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতাদের বিরুদ্ধে। ওই উপজেলার ৭০ টি দূর্গা পুজা মন্ডবের সরকারী বরাদ্দ থেকে মন্দির প্রতি ১ হাজার টাকা করে মোট ৭০ হাজার টাকা চাঁদা উত্তোলন করেন পূজা উদযাপন পরিষদের হাতীবান্ধা উপজেলা কমিটি’র সভাপতি বাবু কেশব চন্দ্র সিংহ। তার দাবী এ টাকা কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়নে ব্যয় করা হবে। এ নিয়ে মন্দির কমিটি’র সভাপতি ও সম্পাদকসহ সাধারণ ভক্ত ও সদস্যদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তবে হিন্দু, খৃষ্টান ও বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের সভাপতি বাবু অশ্বিনী কুমার বসুনিয়া বলেন, যদি এ টাকা উত্তোলন করা হয়ে থাকে তাহলে পুজা উদযাপন পরিষদের নেতারা কাজটি মোটেও ঠিক করে নাই।
হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন জানান, প্রতি পূজায় সরকারী বরাদ্দ মন্দির গুলো পেয়ে থাকেন। করোনাকালে সকলের আর্থিক সংকটের কারণে অনেক মন্দির ঠিক ভাবে আগের মত পূজার আয়োজন করতে পারছিলো না। এমন সময় পূজা উৎসবের জন্য সরকারী বরাদ্দ মন্দির কমিটি’র খুব উপকারে এসেছে। কিন্তু সেই টাকা থেকে ১ হাজার টাকা করে কেন্দ্রীয় মন্দিরের নামে কর্তনের বিষয়টি দুঃখজনক। পূজার বরাদ্দ পূজায় ব্যয় করে মানসম্পন্ন মন্ডব তৈরী করবে ভক্তরা। সেই টাকায় কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়নের সিদ্ধান্ত গ্রহন করে অনিয়মের আশ্রয় নেয়া হয়েছে।
নওদাবাস দোলাপাড়া রাধেশ্যাম হরিমন্দির কমিটি’র সভাপতি মধু সরকার ও বড়খাতা দূর্গামন্দির কমিটি’র সভাপতি যতীন্দ্রনাথ বর্মন বলেন, দূর্গাপুজা উদযাপনের জন্য সরকারী ভাবে ৫ শত কেজি করে চাল বরাদ্দ পেয়েছি। ওই চাল বাজারে ১৯ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে। সেই টাকা থেকে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতারা ১ হাজার টাকা করে কর্তন করেছে। বলা হয়েছে, ওই টাকা কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়নে ব্যয় করা হবে। আমাদের টাকা দিলো পূজা উদযাপনের জন্য। সেই টাকা কেন্দ্রীয় মন্দিরও পেয়েছেন। কিন্তু আমাদের পূজার টাকায় কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়ন হবে বিষয়টি যে কেমন ?
গাওচুলকা দূর্গা মন্দিরের সভাপতি গনেশ চন্দ্র বর্মন বলেন, আমাদের মন্দিরের নামে বরাদ্দ থেকে তারা চাঁদা নিবেন কি কারণে ? এ নিয়ে আমি প্রতিবাদ করেছিলাম। তখন পূজা উদযাপন কমিটি’র নেতারা আমার উপর মন খারাপ। তাই আমিও ১ হাজার টাকা দিয়ে এসেছি। চাউল উত্তোলন, বিক্রি ও ১ হাজার করে টাকা চাঁদা তোলাসহ সব কিছু করেছেন পুজা উদযাপন কমিটি’র সভাপতি বাবু কেশব চন্দ্র সিংহ।
পশ্চিম ধওলাই রাধা গোবিন্দ সর্বজনীন দূর্গামন্দিরের সভাপতি মনোরঞ্জন রায় বলেন, বরাদ্দ পেয়েছি পূজা উদযাপনের জন্য। সম্পুর্ণ টাকা পূজা উৎসবে ব্যয় করার নির্দেশও রয়েছে। কিন্তু সেই টাকা থেকে কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়নের কথা বলে পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাবু কেশব চন্দ্র সিংহসহ কেন্দ্রীয় মন্দির কমিটি’র লোকজন মন্দির প্রতি ১ হাজার টাকা করে কর্তন করেছেন। সবাই দিয়েছে তাই আমিও দিয়েছি।
এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটি’র সভাপতি বাবু কেশব চন্দ্র সিংহ মন্দির প্রতি ১ হাজার করে ৭০ হাজার টাকা উত্তোলনের বিষয়টি স্বীকার করলেও অন্য মন্দিরের পূজা উৎসবের টাকায় কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়ন কতটা ঠিক হয়েছে ? এ বিষয়ে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারে নাই। ফোনে কথা বলার এ পর্যায়ে তিনি ফোন কেটে দেন। পরে একাধিক বার তার সাথে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।
হাতীবান্ধা উপজেলা হিন্দু, খৃষ্টান ও বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের সভাপতি বাবু অশ্বিনী কুমার বসুনিয়া বলেন, আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। তবে সরকার যে বরাদ্দ দিয়েছেন তা পূজা উৎসবে ব্যয় করতে হবে। এ বরাদ্দ কেন্দ্রীয় মন্দিরও পেয়েছেন। করোনা কালীন সময় এ বরাদ্দ পেয়ে আমার খুশি। সেই টাকা থেকে যদি কেন্দ্রীয় মন্দিরের উন্নয়নের নামে টাকা উত্তোলন করা হয়ে থাকে তাহলে পুজা উদযাপন পরিষদের নেতারা কাজটি মোটেও ঠিক করে নাই।
হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন বলেন, প্রতিটি মন্দিরের নামে পূজা উৎসবের জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। সেই বরাদ্দ কেন্দ্রীয় মন্দিরও পেয়েছেন। অন্য মন্দিরের টাকা কেন্দ্রীয় মন্দির নিতে পারেন না। বিষয়টি নিয়ে খোঁজ খবর নেয়া হবে।

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

Akash

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো সংবাদ




উৎসর্গ করলাম আমার পরম শ্রদ্ধেয় বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যে সমৃদ্ধ হয়ে আমি আজ নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছি।

‘রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বাইয়ানি সাগিরা।’

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪০৩,০৭৯
সুস্থ
৩১৯,৭৩৩
মৃত্যু
৫,৮৬১
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪৩,৯৪৪,০৮৯
সুস্থ
২৯,৭৮৭,৬৭৩
মৃত্যু
১,১৬৬,৬৮৫

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১







ইমেলের মাধ্যমে ব্লগে সাবস্ক্রাইব করুন-

সর্বশেষ সংবাদের সাথে আপডেটেড থাকতে সাবস্ক্রাইব করুন।

জরুরি প্রয়োজনে হটলাইন

https://i1.wp.com/moi.gov.bd/sites/default/files/files/admin.portal.gov.bd/npfblock//National-Helpline.jpg?ssl=1

© All rights reserved © 2015 newsbijoy।এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
themesbanewsbijo41