1. fhn.faruk@gmail.com : admin2020 :
  2. newsbijoy.bd@gmail.com : news bijoy : news bijoy
  3. newsbdn.bd@gmail.com : Fahim Hossaun : Fahim Hossaun
হারাগাছে মা ও শিশু কল্যাল কেন্দ্রে রাতে সেবা বন্ধ: ঝোপঝাড়ে সন্তান প্রসব - NewsBijoy
শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

নিউজবিজয় এখন তিন ভাষায় পড়ুন – NewsBijoy Now Read in Three Languages


হারাগাছে মা ও শিশু কল্যাল কেন্দ্রে রাতে সেবা বন্ধ: ঝোপঝাড়ে সন্তান প্রসব

মো: মিজানুর রহমান, নিউজবিজয় প্রতিবেদক :-
  • প্রকাশিত সময় :- বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১
newsbijoy

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার শ্রমিক অধ্যুষিত হারাগাছে অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের গর্ভবর্তী নারীদের স্বাস্থ্য সেবা এবং নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসবের একমাত্র আশ্রয়স্থল হারাগাছ মাতৃমঙ্গল বা মা ও শিশু কল্যাল কেন্দ্র। কিন্তু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে বিকেল থেকে পরদিন সকাল পর্যন্ত প্রতিদিনি ১৮ ঘন্টা সেবা কার্যক্রম বন্ধ থাকে। ফলে রাতে কোন গর্ভবর্তী নারী নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসবের জন্য এসে বিপাকে পড়ে কেন্দ্রের আশপাশ ঝোপঝাড়ে সন্তান প্রসব করছেন। গত মঙ্গলবার রাতে সাড়ে ১২ টার দিকে হারাগাছ ইউনিয়নের চরনাজিরদহ মফিজপাড়া গ্রামের শাহাদত হোসেনের গর্ভবর্তী স্ত্রী লিমা বেগম নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসব করতে এসে মা ও শিশু কল্যাল কেন্দ্রের ভবনের আশপাশ মাঠে ঘাসের উপর সন্তান প্রসব করেন। লিমা বেগমের স্বামী শাহাদত হোসেন বলেন, আল্লাহর রহমতে স্ত্রী ও সন্তান বেচে গেছে। আর কিছু সময় পাড় হলে স্ত্রী-সন্তান দুইজনেই মারা যেত। তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার সন্ধায় তার স্ত্রীর সন্তান প্রসবের ব্যাথা উঠে। বাড়ীতে স্থানীয় দাইরা চেষ্ঠা করা হয়। পরে নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসবের জন্য রাত সাড়ে ১১ টার দিকে হারাগাছ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে স্ত্রীকে নিয়ে আসি। কিন্তু মাতৃমঙ্গল কেন্দ্রে কোন ডাক্তার ও নার্স কেউই নাই, কেন্দ্রের কেচি গেটে তালা ঝুলছে। প্রসবের ব্যাথায় স্ত্রী ছটফট করতে থাকে। পরে কেন্দ্রের ভবনের পাশে ঘাসের উপর শুয়ে পড়ে মেয়ে সন্তান প্রসব জন্ম দেয় তার স্ত্রী। পরে রাত একটার দিকে অটোবাইকে করে স্ত্রী ও মেয়ে সন্তারকে বাড়ীতে নিয়ে যান । স্থানীয়রা জানায়, হারাগাছের বেশির ভাগ মানুষ শ্রমিক। তাদের পক্ষে শহরের বেসরকারি হাসপাতালে গর্ভবর্তী নারীদের চিকিৎসাসেবা নেওয়া অসম্ভব। শ্রমিক পরিবারের গর্ভবর্তী নারীদের একমাত্র নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসবের আশ্রয়স্থল হারাগাছ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র। কিন্তু মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে অনেক গর্ভবর্তী নারীরা সেবা পায় না। দীর্ঘদিন ধরে রাতেই বেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সেবা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এখানে যারা দায়িত্বে রয়েছেন তারাও ঠিকভাবে সেবা প্রদান করেন না। মিনাবাজার এলাকার রানা মিয়া বলেন, হারাগাছ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিবার কল্যান পরিদর্শিকা তিনি প্রায় দিনে আসেন না। মাঝে মাঝে আসেন, অল্প সময় থেকে আবার শহরে চলে যান। ফলে সেবা নিতে আসা অনেক গর্ভবতী নারী বিপদে পড়ে মা ও শিশু কল্যাল কেন্দ্রের আশপাশ ঝোপঝাড়ে সন্তান প্রসব করে ফেলছে। তিনি বলেন, গত মঙ্গলবার রাতেও একজন গর্ভবতী নারী মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের মাঠে ঘাসের উপর সন্তান প্রসব করেছেন। এপর্যন্ত চলতি এক সপ্তাহে রাতের বেলায় তিনজন নারী এভাবে সন্তান প্রসব করেছেন। আকবর আলী নামে আরেক জন বলেন, মা ও শিশুদের মৃত্যু হার কমাতে এবং নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসবের জন্য নিকটস্থ্য স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যাওয়ার জন্য প্রতিদিনেই টেলিভিশন ও পত্রিকায় প্রচার করছে। কিন্তু স্বাস্থ্য কেন্দ্রের এই অবস্থায়। অনেকেই সেবা নিতে এসে ফিরে যায়। হারাগাছ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে রাতে কোন লোক থাকে না । অথচ থাকার জন্য আলাদা ভবন রয়েছে।
হারাগাছ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিবার কল্যান পরিদর্শিকা জান্নাতুল ফেরদৌউস জানান, এখানে তিনি ও দুইজন দাই নার্স সহ তিনজন দায়িত্বে আছেন। যদিও ২৪ ঘন্টা গর্ভবতী নারীদের সেবা দেওয়ার কথা। কিন্তু তিনজনের পক্ষে ২৪ ঘন্টা সেবা দেওয়া সম্ভব না। তিনি বলেন, সপ্তাহে শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার ছয়দিন সকাল নয়টা থেকে বিকেল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত তারা গর্ভবতী নারীদের সেবা দিচ্ছেন। আগে ল্যাম্ব এনজিওর স্বাস্থ্যকর্মীরা ছিল তখন রাতে সেবা চালু ছিল। এখন এনজিওর স্বাস্থ্যকর্মীরা না থাকায় বিকেল থেকে পরদিন সকাল পর্যন্ত ১৮ ঘন্টা সেবা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ জানেন। এছাড়া তিনি গতকাল বুধবার থেকে চারদিনের ছুটিতে আছেন। এ বিষয়ে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সহিদুল ইসলাম বলেন, তিনি প্রায় দুই মাস আগে এ উপজেলায় যোগদান করছেন। তিনি যোগদানের পরেই হারাগাছ মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিবার কল্যান পরিদর্শিকার ব্যাপারে অভিযোগ জানতে পেরেছেন।বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসব করতে এতে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের ঘাসের উপর সন্তান প্রসবের বিষয়টি দু:খজনক বলে অভিমত প্রকাশ করেছেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপপরিচালক মো: সাইদুল ইসলাম। তিনি বলেন, ঘটনাটি তিনি এইমাত্র জানতে পারলেন। নিরাপদ ও স্বাভাবিক সন্তান প্রসবের জন্য ইউনিয়ন পর্যায়ে মা ও শিশু কল্যাণগুলোতে অসহায় দরিদ্র মানুষের আশ্রয়স্থল। কিন্তু জনবল সমস্যা রয়েছে। ফলে সেবা কিছুটা বিগ্নিত হচ্ছে।
নিউজবিজয় / এফএইচএন / ১০ নভেম্বর ২০২১

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন নিউজবিজয়ে। আজই পাঠিয়ে দিন – newsbijoy.bd @gmail.com

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

উৎসর্গ করলাম আমার পরম শ্রদ্ধেয় বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যে সমৃদ্ধ হয়ে আমি আজ নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছি।

‘রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বাইয়ানি সাগিরা।’



জরুরি হটলাইন


  জরুরি হটলাইন

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

হট লাইন

 হট লাইন

ইমেলের মাধ্যমে ব্লগে সাবস্ক্রাইব করুন-

সর্বশেষ সংবাদের সাথে আপডেটেড থাকতে সাবস্ক্রাইব করুন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।তথ্য মন্ত্রণালয় আবেদনকৃত।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbanewsbijo41
বাংলা বাংলা English English