ঢাকা ০৭:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :-
NewsBijoy নিউজ বিজয়ের পক্ষ থেকে সবাইকে  অভিনন্দন NewsBijoy  দেশের জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল  " নিউজ বিজয় নতুন আঙ্গিকে যাত্রা শুরু করলো " NewsBijoy  এ জন্য  নিউজ বিজয়ের সাইডে আপডেটের কাজ চলছে। তাই এই পরিবর্তনের সময়ে পাঠকের সাময়িক সমস্যা হতে পারে। NewsBijoy

পদ্মা সেতু নির্মাণ

সুনামগঞ্জের ডিসি অফিসে জন্ম নেওয়া শিশুটির নাম রাখলেন প্রধানমন্ত্রী

  • অনলাইন ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় : ০২:৪৪:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ জুন ২০২২
  • ১২১ বার পড়া হয়েছে ।

সুনামগঞ্জে ডিসি অফিসের আশ্রয়কেন্দ্রে জন্ম নেওয়া শিশুর নাম রাখলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (১৮ জুন) সকাল ১০টার সময় জন্ম নেওয়া শিশুটির নাম মোবাইল ফোনে নিজে ‘প্লাবন’ রাখেন প্রধানমন্ত্রী। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, পৌর শহরের মল্লিকপুর এলাকার বাসিন্দা জমিলা খাতুনের প্রসব বেদনা শুরু হলে রোববার সকালে স্বামী সুমন মিয়ার সঙ্গে সুনামগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রওনা হন। কিন্তু রাস্তা ডুবে যাওয়ায় তারা আটকা পড়েন। পরে তাদের সুনামগঞ্জে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় ডিসি অফিসের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়। সকাল ১০টায় জমিলার কোল আলো করে জন্ম নেয় দ্বিতীয় পুত্রসন্তান। পরে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানালে তিনি ওই শিশুটির নাম প্লাবন রেখে দেন। একইসঙ্গে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেনের মাধ্যমে শিশুকে উপহার সামগ্রী পাঠিয়ে দেন। শিশুটির বাবা গাড়িচালক সুমন মিয়া বলেন, বন্যা এসে সুনামগঞ্জের সব মানুষের কষ্ট হয়েছে। আমারও খুব কষ্ট হয়েছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন আমার ছেলের নাম নিজে রেখে দিলেন এবং উপহার সামগ্রী পাঠালেন আমি নিজেকে ধন্য মনে করেছি। নবজাতকের মা জমিলা খাতুন  বলেন, ভেবেছিলাম বন্যার পানির কারণে হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই আমি মারা যাবো। কিন্তু জেলা প্রশাসনের সহায়তায় আমাকে তাদের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে সুন্দরভাবে সন্তান প্রসব করিয়েছে। আমার ছেলের নাম প্রধানমন্ত্রী নিজে রেখেছেন, আমি সত্যি খুব আনন্দিত। সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো.জাহাঙ্গীর হোসেন  বলেন, মল্লিকপুর এলাকার ওই দম্পতির বাড়ি বন্যার পানিতে ডুবে গিয়েছিল। তার মধ্যে জমিলা খাতুনের প্রসব যন্ত্রণা উঠলে তারা সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে যাওয়ার জন্য বের হয়। কিন্তু রাস্তা ডুবে যাওয়ায় সেখানে যেতে পারেনি। পরে আমি তাদের আমার কার্যালয়ের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে এলে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম হয়। বিষয়টি আমি প্রধানমন্ত্রীকে জানালে তিনি শিশুটির নাম প্লাবন রেখে দেন এবং তার জন্য উপহার সামগ্রী পাঠান।

নিউজ বিজয়/মোঃ নজরুল ইসলাম

সম্পর্কিত বিষয় :

পাঠকের মন্তব্য:

NewsBijoy

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। নিউজবিজয় এখন তিন ভাষায় পড়ুন – (NewsBijoy Now Read in Three Languages) 'মানবতার পক্ষে সবসময়'

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে বীরগঞ্জে আনন্দ র‌্যালী

পদ্মা সেতু নির্মাণ

সুনামগঞ্জের ডিসি অফিসে জন্ম নেওয়া শিশুটির নাম রাখলেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০২:৪৪:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ জুন ২০২২

সুনামগঞ্জে ডিসি অফিসের আশ্রয়কেন্দ্রে জন্ম নেওয়া শিশুর নাম রাখলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (১৮ জুন) সকাল ১০টার সময় জন্ম নেওয়া শিশুটির নাম মোবাইল ফোনে নিজে ‘প্লাবন’ রাখেন প্রধানমন্ত্রী। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, পৌর শহরের মল্লিকপুর এলাকার বাসিন্দা জমিলা খাতুনের প্রসব বেদনা শুরু হলে রোববার সকালে স্বামী সুমন মিয়ার সঙ্গে সুনামগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রওনা হন। কিন্তু রাস্তা ডুবে যাওয়ায় তারা আটকা পড়েন। পরে তাদের সুনামগঞ্জে জেলা প্রশাসনের সহায়তায় ডিসি অফিসের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়। সকাল ১০টায় জমিলার কোল আলো করে জন্ম নেয় দ্বিতীয় পুত্রসন্তান। পরে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানালে তিনি ওই শিশুটির নাম প্লাবন রেখে দেন। একইসঙ্গে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেনের মাধ্যমে শিশুকে উপহার সামগ্রী পাঠিয়ে দেন। শিশুটির বাবা গাড়িচালক সুমন মিয়া বলেন, বন্যা এসে সুনামগঞ্জের সব মানুষের কষ্ট হয়েছে। আমারও খুব কষ্ট হয়েছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন আমার ছেলের নাম নিজে রেখে দিলেন এবং উপহার সামগ্রী পাঠালেন আমি নিজেকে ধন্য মনে করেছি। নবজাতকের মা জমিলা খাতুন  বলেন, ভেবেছিলাম বন্যার পানির কারণে হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই আমি মারা যাবো। কিন্তু জেলা প্রশাসনের সহায়তায় আমাকে তাদের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে সুন্দরভাবে সন্তান প্রসব করিয়েছে। আমার ছেলের নাম প্রধানমন্ত্রী নিজে রেখেছেন, আমি সত্যি খুব আনন্দিত। সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো.জাহাঙ্গীর হোসেন  বলেন, মল্লিকপুর এলাকার ওই দম্পতির বাড়ি বন্যার পানিতে ডুবে গিয়েছিল। তার মধ্যে জমিলা খাতুনের প্রসব যন্ত্রণা উঠলে তারা সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে যাওয়ার জন্য বের হয়। কিন্তু রাস্তা ডুবে যাওয়ায় সেখানে যেতে পারেনি। পরে আমি তাদের আমার কার্যালয়ের আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে এলে একটি পুত্রসন্তানের জন্ম হয়। বিষয়টি আমি প্রধানমন্ত্রীকে জানালে তিনি শিশুটির নাম প্লাবন রেখে দেন এবং তার জন্য উপহার সামগ্রী পাঠান।

নিউজ বিজয়/মোঃ নজরুল ইসলাম