ঢাকা ০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

Up to BDT 150 Cashback on New Connection

ভারতে গেল ৮ মেট্রিক টন ইলিশ

newsbijoy.com

দুর্গাপূজা উপলক্ষে প্রথম চালানে দুই ট্রাকে আট মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে গেছে। আজ সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বেনাপোল কাস্টমস ও বন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে ইলিশের ট্রাক প্রবেশ করেছে। এবারের দুর্গাপূজায় ভারতে ২ হাজার ৪৫০ মেট্রিক টন ইলিশ বাংলাদেশ থেকে রফতানি হবে।

এর আগে রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) ৪৯ প্রতিষ্ঠানকে ইলিশ রফতানির অনুমতি দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। প্রতিটি প্রতিষ্ঠান ৫০ টন করে ইলিশ রফতানি করতে পারবে। আজ সন্ধ্যায় প্রথম চালানে আট মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে রফতানি হয়েছে। রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান হলো বরিশালের মাহিমা এন্টারপ্রাইজ।

আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান হলো ভারতের এস আর ইন্টারন্যাশনাল। প্রতি কেজি ইলিশ মাছ ১০ মার্কিন ডলারে রফতানি হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল মৎস্য পরিদর্শন ও মান নিয়ন্ত্রণ অফিসের পরিদর্শক মাহাবুব রহমান।

তিনি বলেন, ‘ইলিশ রফতানি নিষিদ্ধ হলেও দুর্গাপূজা উপলক্ষে এবার দুই হাজার ৪৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রফতানির অনুমোদন দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এসব ইলিশ রফতানির অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশের ৪৯টি প্রতিষ্ঠান। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রফতানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ প্রথম চালানে দুই ট্রাকে করে ইলিশ গেছে। পর্যায়ক্রমে বাকি ইলিশ রফতানি হবে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব ইলিশ রফতানির নির্দেশনা রয়েছে।’

বেনাপোলের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট যুথী এন্টারপ্রাইজের ম্যানেজার মিজানুর রহমান বলেন, ‘এবার প্রতি কেজি ইলিশের রফতানি মূল্য ১০ মার্কিন ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় প্রতি কেজি ৯৪৭ টাকা ৩৯ পয়সা। ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের কাস্টমস থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় ইলিশের এ চালান ছাড় করা হবে।’

বেনাপোল কাস্টমস হাউসের যুগ্ম কমিশনার আব্দুল রশীদ মিয়া জানান, প্রথম চালানে ৮ মেট্রিক টন আজ বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে গেছে। দ্রুত রফতানি করার জন্য কাস্টমসের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নিউজবিজয়/এফএইচএন

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার শুভ জন্মদিন আজ

আজ বুধবার, দেশের কোথায় কখন লোডশেডিং

ভারতে গেল ৮ মেট্রিক টন ইলিশ

প্রকাশিত সময়: ১০:৫২:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

দুর্গাপূজা উপলক্ষে প্রথম চালানে দুই ট্রাকে আট মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে গেছে। আজ সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বেনাপোল কাস্টমস ও বন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে ইলিশের ট্রাক প্রবেশ করেছে। এবারের দুর্গাপূজায় ভারতে ২ হাজার ৪৫০ মেট্রিক টন ইলিশ বাংলাদেশ থেকে রফতানি হবে।

এর আগে রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর) ৪৯ প্রতিষ্ঠানকে ইলিশ রফতানির অনুমতি দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। প্রতিটি প্রতিষ্ঠান ৫০ টন করে ইলিশ রফতানি করতে পারবে। আজ সন্ধ্যায় প্রথম চালানে আট মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে রফতানি হয়েছে। রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান হলো বরিশালের মাহিমা এন্টারপ্রাইজ।

আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান হলো ভারতের এস আর ইন্টারন্যাশনাল। প্রতি কেজি ইলিশ মাছ ১০ মার্কিন ডলারে রফতানি হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল মৎস্য পরিদর্শন ও মান নিয়ন্ত্রণ অফিসের পরিদর্শক মাহাবুব রহমান।

তিনি বলেন, ‘ইলিশ রফতানি নিষিদ্ধ হলেও দুর্গাপূজা উপলক্ষে এবার দুই হাজার ৪৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রফতানির অনুমোদন দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এসব ইলিশ রফতানির অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশের ৪৯টি প্রতিষ্ঠান। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে ৫০ মেট্রিক টন ইলিশ রফতানির অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ প্রথম চালানে দুই ট্রাকে করে ইলিশ গেছে। পর্যায়ক্রমে বাকি ইলিশ রফতানি হবে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব ইলিশ রফতানির নির্দেশনা রয়েছে।’

বেনাপোলের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট যুথী এন্টারপ্রাইজের ম্যানেজার মিজানুর রহমান বলেন, ‘এবার প্রতি কেজি ইলিশের রফতানি মূল্য ১০ মার্কিন ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় প্রতি কেজি ৯৪৭ টাকা ৩৯ পয়সা। ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের কাস্টমস থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় ইলিশের এ চালান ছাড় করা হবে।’

বেনাপোল কাস্টমস হাউসের যুগ্ম কমিশনার আব্দুল রশীদ মিয়া জানান, প্রথম চালানে ৮ মেট্রিক টন আজ বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে গেছে। দ্রুত রফতানি করার জন্য কাস্টমসের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নিউজবিজয়/এফএইচএন