ঢাকা ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

Up to BDT 150 Cashback on New Connection

পটকা মাছ খেয়ে মা-ছেলের মৃত্যু

newsbijoy.com

নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে পাওয়া পটকা মাছ খেয়ে ছেলেসহ মায়ের মৃত্যু হয়েছে। খুলনার লবণচরা থানার মাথাভাঙ্গা রেলব্রিজ এলাকায় আজ সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া দুজন আব্দুর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৫) ও স্ত্রী পরী বেগম (৫৫)। এ ঘটনায় সাইদুল (২৫) নামে আরও একজন অসুস্থ হয়েছেন। তিনি খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

লবণচরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. এনামুল হক এ ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করা পরী বেগম সোমবার দুপুরে ও নদীতে মাছ ধরতে যান। এ সময় তিনি একটি মরা পটকা মাছ পান। তা এনে খেয়ে ছেলেসহ মারা গেছেন।

স্থানীয়রা আরও জানান, দুপুরে আব্দুর রহমানের স্ত্রী পরী বেগম রূপসা নদীতে মাছ ধরতে যান। এ সময় তিনি একটি মরা পটকা মাছ পান। দুপুরে পটকা মাছটি রান্না করেন। পরে ওই মাছ দিয়ে ছেলে জাহাঙ্গীর এবং বোনের ছেলে সাইদুলকে নিয়ে পরী বেগম দুপুরে খাওয়া দাওয়া করেন। খাওয়ার এক পর্যায়ে ছেলে জাহাঙ্গীর এবং মা পরী বেগমের মৃত্যু হয়। আর অসুস্থ হয়ে পরা সাইদুলকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাদের সবার বাড়ি বটিয়াঘাটার জলমা ইউনিয়নের মাথাভাঙ্গা গ্রামে। এছাড়া তারা অসুস্থ হয়ে বমি করেছিলেন। তা খেয়ে তিনটি মুরগিও মারা গেছে।মৃত জাহাঙ্গীরের ভাবি রোজিনা বেগম বলেন, সাইদুলকে হাসপাতালে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছে।

নিউজবিজয়/এফএইচএন

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

রানির মৃত্যুসনদে যা লেখা হয়েছে

পটকা মাছ খেয়ে মা-ছেলের মৃত্যু

প্রকাশিত সময়: ১১:১৩:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২

নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে পাওয়া পটকা মাছ খেয়ে ছেলেসহ মায়ের মৃত্যু হয়েছে। খুলনার লবণচরা থানার মাথাভাঙ্গা রেলব্রিজ এলাকায় আজ সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া দুজন আব্দুর রহমানের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন (৩৫) ও স্ত্রী পরী বেগম (৫৫)। এ ঘটনায় সাইদুল (২৫) নামে আরও একজন অসুস্থ হয়েছেন। তিনি খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

লবণচরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. এনামুল হক এ ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করা পরী বেগম সোমবার দুপুরে ও নদীতে মাছ ধরতে যান। এ সময় তিনি একটি মরা পটকা মাছ পান। তা এনে খেয়ে ছেলেসহ মারা গেছেন।

স্থানীয়রা আরও জানান, দুপুরে আব্দুর রহমানের স্ত্রী পরী বেগম রূপসা নদীতে মাছ ধরতে যান। এ সময় তিনি একটি মরা পটকা মাছ পান। দুপুরে পটকা মাছটি রান্না করেন। পরে ওই মাছ দিয়ে ছেলে জাহাঙ্গীর এবং বোনের ছেলে সাইদুলকে নিয়ে পরী বেগম দুপুরে খাওয়া দাওয়া করেন। খাওয়ার এক পর্যায়ে ছেলে জাহাঙ্গীর এবং মা পরী বেগমের মৃত্যু হয়। আর অসুস্থ হয়ে পরা সাইদুলকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাদের সবার বাড়ি বটিয়াঘাটার জলমা ইউনিয়নের মাথাভাঙ্গা গ্রামে। এছাড়া তারা অসুস্থ হয়ে বমি করেছিলেন। তা খেয়ে তিনটি মুরগিও মারা গেছে।মৃত জাহাঙ্গীরের ভাবি রোজিনা বেগম বলেন, সাইদুলকে হাসপাতালে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়েছে।

নিউজবিজয়/এফএইচএন