ঢাকা ০১:৫১ অপরাহ্ন, বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

Up to BDT 150 Cashback on New Connection

দিনাজপুরে আবারো বেড়েছে চালের দাম. হতাশ ক্রেতারা!

ফাইল ছবি

newsbijoy.com

এক সপ্তাহের ব্যবধানে দিনাজপুরে বিভিন্ন বাজারে বেড়েছে চালের দাম। সব ধরণের চালের দাম কেজি প্রতি বেড়েছে ৩ থেকে ৫ টাকা। বাজারের সব কিছুর সঙ্গে চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষেরা।দিনাজপুরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, সপ্তাহখানেক ধরে প্রতিদিনই চালের দাম বাড়ছে। আবার চাহিদা অনুযায়ী চাল দিচ্ছেন না মিলাররা। পাইকারি বাজারে গুটি স্বর্ণা বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে, উনত্রিশ ৫৫ থেকে ৫৭ টাকা, আটাশ ৫৭ থেকে ৬০ টাকা, মিনিকেট ৬০ থেকে ৭০ টাকা, নাজিরশাইল ৮০ টাকা, সিদ্ধ কাঠারী ১০৮ থেকে ১১২ টাকা ও আতব চাল প্রকারভেদে ১১০ টাকা থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।বাহাদুর বাজারে চাল কিনতে আসা মনির হোসেন বলেন, আমরা নিম্ন আয়ের মানুষ। একসঙ্গে অনেক চাল কিনে রাখা সম্ভব হয় না। ৫ থেকে ১০ কেজি করে চাল কিনি। বাজারের সব জিনিসপত্রের দামের সঙ্গে সঙ্গে কয়েকদিন থেকেই চালের বাজার বেড়েই চলছে।বাহাদুর বাজারের চাল ব্যবসায়ী মেসার্স এরশাদ ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী এরশাদ হোসেন বলেন, প্রতিদিনই চালের দাম বাড়ছে। গত এক সপ্তাহে চালের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৩ থেকে ৫ টাকা। খুরচা বাজারে আরও ৩ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে।জেলার নিলুফা অটো রাইস মিলের স্বত্বাধিকারী ইসলাম উদ্দীন আহমেদ বলেন, চাহিদা মতো বিদ্যুৎ সরবরাহ না থাকায় মিল চালু রাখতে জেনারেটর ব্যবহার করতে হচ্ছে। ডিজেলের দাম বাড়ায় উৎপাদন খরচ বেড়ে যাচ্ছে। আবার বাজারে ধানের সংকট থাকায় ঠিকমতো মিল চালানো যাচ্ছে না। এজন্য বাজারে চালের দাম কেজিতে ৩-৫ টাকা বেড়েছে।জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বলেন, চালের দাম বৃদ্ধির তথ্য সঠিক নয়। জেলা খাদ্য বিভাগ ও জেলা প্রশাসন নিয়মিত বাজার মনিটরিং করছে। ধান-চালের দাম স্থিতিশীল আছে। তবে দাম বাড়ছে এ ধরনের একটি গুঞ্জন আছে চালের বাজারে।

নিউজবিজয়/এফএইচএন

সকল সংবাদ পেতে ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন…

নিউজবিজয় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

আপনার সোস্যাল মিডিয়ায় শেয়ার দিন

NewsBijoy

নিউজবিজয়২৪.কম একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বস্তুনিষ্ঠ ও তথ্যভিত্তিক সংবাদ প্রকাশের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। উৎসর্গ করলাম আমার বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যের পরশ পরিবারের সুখ-দু:খ,হাসি-কান্না,ব্যথা-বেদনার মাঝেও আপার শান্তিতে পরিবার তথা সমাজে মাথা উচুঁ করে নিজের অস্তিত্বকে মেলে ধরতে পেরেছি।

দিনাজপুরে আবারো বেড়েছে চালের দাম. হতাশ ক্রেতারা!

প্রকাশিত সময়: ০৬:২৬:২৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ অগাস্ট ২০২২

এক সপ্তাহের ব্যবধানে দিনাজপুরে বিভিন্ন বাজারে বেড়েছে চালের দাম। সব ধরণের চালের দাম কেজি প্রতি বেড়েছে ৩ থেকে ৫ টাকা। বাজারের সব কিছুর সঙ্গে চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষেরা।দিনাজপুরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, সপ্তাহখানেক ধরে প্রতিদিনই চালের দাম বাড়ছে। আবার চাহিদা অনুযায়ী চাল দিচ্ছেন না মিলাররা। পাইকারি বাজারে গুটি স্বর্ণা বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে, উনত্রিশ ৫৫ থেকে ৫৭ টাকা, আটাশ ৫৭ থেকে ৬০ টাকা, মিনিকেট ৬০ থেকে ৭০ টাকা, নাজিরশাইল ৮০ টাকা, সিদ্ধ কাঠারী ১০৮ থেকে ১১২ টাকা ও আতব চাল প্রকারভেদে ১১০ টাকা থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।বাহাদুর বাজারে চাল কিনতে আসা মনির হোসেন বলেন, আমরা নিম্ন আয়ের মানুষ। একসঙ্গে অনেক চাল কিনে রাখা সম্ভব হয় না। ৫ থেকে ১০ কেজি করে চাল কিনি। বাজারের সব জিনিসপত্রের দামের সঙ্গে সঙ্গে কয়েকদিন থেকেই চালের বাজার বেড়েই চলছে।বাহাদুর বাজারের চাল ব্যবসায়ী মেসার্স এরশাদ ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী এরশাদ হোসেন বলেন, প্রতিদিনই চালের দাম বাড়ছে। গত এক সপ্তাহে চালের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ৩ থেকে ৫ টাকা। খুরচা বাজারে আরও ৩ থেকে ৫ টাকা বেড়েছে।জেলার নিলুফা অটো রাইস মিলের স্বত্বাধিকারী ইসলাম উদ্দীন আহমেদ বলেন, চাহিদা মতো বিদ্যুৎ সরবরাহ না থাকায় মিল চালু রাখতে জেনারেটর ব্যবহার করতে হচ্ছে। ডিজেলের দাম বাড়ায় উৎপাদন খরচ বেড়ে যাচ্ছে। আবার বাজারে ধানের সংকট থাকায় ঠিকমতো মিল চালানো যাচ্ছে না। এজন্য বাজারে চালের দাম কেজিতে ৩-৫ টাকা বেড়েছে।জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বলেন, চালের দাম বৃদ্ধির তথ্য সঠিক নয়। জেলা খাদ্য বিভাগ ও জেলা প্রশাসন নিয়মিত বাজার মনিটরিং করছে। ধান-চালের দাম স্থিতিশীল আছে। তবে দাম বাড়ছে এ ধরনের একটি গুঞ্জন আছে চালের বাজারে।

নিউজবিজয়/এফএইচএন