1. fhn.faruk@gmail.com : admin2020 :
  2. newsbijoy.bd@gmail.com : news bijoy : news bijoy
  3. newsbdn.bd@gmail.com : Fahim Hossaun : Fahim Hossaun
তিস্তার পানি হঠাৎ করে বিপদসীমার উপরে, রেড অ্যালার্ট জারি - NewsBijoy
বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

নিউজবিজয় এখন তিন ভাষায় পড়ুন – NewsBijoy Now Read in Three Languages


তিস্তার পানি হঠাৎ করে বিপদসীমার উপরে, রেড অ্যালার্ট জারি

নিউজবিজয় প্রতিবেদক :-
  • প্রকাশিত সময় :- বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১
newsbijoy

ভারতের ভয়াবহ বন্যার প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশের তিস্তা নদীতে। এতে নীলফামারী ও লালমনিরহাট ও রংপুর জেলার তিস্তা নদীবেষ্টিত এলাকা ডুবতে শুরু করেছে। ফলে তিস্তা অববাহিকায় পানি উন্নয়ন বোর্ড রেড অ্যালার্ট (লাল সংকেত) জারি করে মানুষজনকে নিরাপদে সরে যাওয়ার জন্য ঘোষণা দিয়েছে।
আজ (বুধবার, ২০ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার (৫২.৬০) ৫০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে (৫৩.১০) প্রবাহিত হয়। যা সকাল ৯টায় আরো ১০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৬০ সেন্টিমিটার (৫৩.২০) উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উজান ও ভাটি অংশ তীব্র স্রোতে নদীর দুই ধারের সব ফসলি জমি ডুবে গেছে।

তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি জলকপাট খুলে রেখেও তিস্তার পানি সামাল দিতে পারছে না সংশ্লিষ্টতা। এতে তিস্তা ব্যারাজ রক্ষায় উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত ফ্লাড ফিউজ হুমকির মুখে পড়েছে। যেকোনো সময় তা বিধ্বস্ত হতে পারে। তিস্তা ব্যারাজ এলাকায় ফ্লাড বাইপাস সড়কসহ গড্ডিমারী ও সিঙ্গিমারী এলাকার অনেক রাস্তা ভেঙ্গে গেছে।

May be an image of waterfall and nature

ভেঙ্গে গেছে তিস্তা বাইপাস সড়ক

এটি ভেঙে গেলে তিস্তা ব্যারাজের সঙ্গে লালমনিরহাট জেলার বুড়িমারী, পাটগ্রাম, হাতীবান্ধার সঙ্গে নীলফামারী জেলার সড়ক পথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে।

তিস্তার ভয়াবহ বন্যায় এলাকার হাজার হাজার পরিবার ঘরবাড়ি ছেড়ে উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছে।

কার্তিক মাসে তিস্তা নদীতে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি এলাকাবাসী ১৯৬৮ সালে একবার দেখেছিল। দীর্ঘ ৬২ বছর পর ফের তিস্তায় এমন বন্যা দেখে তিস্তা পাড়ের প্রবীণ ব্যক্তি হাতেম আলী (৮৮) এ কথা জানান।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পানি পরিমাপক নুরুল ইসলাম জানান, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত তিস্তার পানি বিপদসীমার অনেক নিচে প্রবাহিত হচ্ছিল। সেই পানি ১২ ঘণ্টায় ১০৭ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে সকাল ৬টায় বিপদসীমার ৫০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। যা সকাল ৯টায় আরো ১০ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পায়।

ভারতের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে তিস্তা নদীর পানি ভয়ানকভাবে বেড়েছে। ভারি বৃষ্টিপাত পাহাড়ি ঢলে তিস্তার পানি দো-মহনী পয়েন্টে বুধবার সকাল ৬টায় বিপদসীমার (৮৫.৯৬) ৬৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে (৮৬.৬৩) প্রবাহিত হচ্ছে। সেই পানি সকাল ৭টায় আরো ২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। ভারতের শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, আলিপুর দুয়ার এলাকা তলিয়ে গেছে।

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান জানান, এলাকার জিরো পয়েন্টে তিস্তার ডান তীর ও গ্রোয়েন বাঁধ হুমকির মুখে পড়েছে। বিশেষ করে গ্রোয়েন বাঁধটির উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ওই গ্রোয়েনটি বিধ্বস্ত হলে ডান তীর বাঁধসহ এলাকার শত শত বাড়ি তিস্তা নদীতে ভেসে যাবে।

টেপাখড়িবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ময়নুল হক বলেন, পরিস্থিতি খুব খারাপ। তিস্তা বাজার, তেলিরবাজার, দোলাপাড়া, চরখড়িবাড়ি এলাকা তলিয়ে গেছে। চরের ফসলের জমি সব পানির নিচে। ঘরবাড়ি ছেড়ে মানুষজন গবাদি পশুসহ নিরাপদে সরে গেছে।

খালিশাচাঁপানী ইউপি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান বলেন, কার্তিক মাসের এমন হঠাৎ বন্যা এলাকাবাসীকে পথে বসিয়ে দিচ্ছে। এলাকার ছোটখাতা,বাইশপুকুর, সুপারীপাড়া গ্রাম এখন নদীতে পরিণত হয়েছে।

এ ছাড়া নীলফামারীর ডিমলাও জলঢাকা উপজেলার ২২টি চরের ৫০ হাজার পরিবার বন্যা কবলিত।

May be an image of tree and body of water

অপরদিকে লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা ও পাটগ্রাম কালিগঞ্জ,আদিতমারী উপজেলার দহগ্রাম, সানিয়াজান, গড্ডিমারী, সিন্দুর্না, পাটিকাপাড়া, সিংগিমারী, ভোটমারী, কাকিনা, অ মহিষখোচা, পলাশী খুনিয়াগাছ, রাজপুর, গোকুন্ডা ইউনিয়নের নদীর তীরবর্তী মানুষেরা পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। তবে কতগুলো পরিবার পানিবন্দি তা এখনো জানা যায়নি।

হঠাৎ তিস্তায় পানি প্রবাহ বৃদ্ধি পাওয়ায় চরাঞ্চলের সবজিসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। ফসল এরইমধ্যে পানিতে ডুবে গেছে। পানিবন্দি পরিবারগুলো শিশু, বৃদ্ধ ও গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন।

চরাঞ্চলের জাবেদ আলী জানান, রাতে হঠাৎ তিস্তার পানি বেড়ে যাবে ভাবতে পারিনি। রাতে পরিবার নিয়ে কোথায় যাব ভেবে পাচ্ছি না। পানি উন্নয়নের লোকজন আগে কোনোরকম ঘোষণা দেয়নি যে বাড়ি সরিয়ে ফেলতে হবে। পরিবার নিয়ে চরম বিপাকে আছি।

এদিকে রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তিস্তার পানির তীব্র স্রোতে কোলকোন্দ ইউনিয়নে বিনবিনা চরে সদ্য নির্মিত স্বেচ্ছাশ্রমের বাঁধের প্রায় আধা কিলোমিটার বিলীন হয়ে গেছে। বাঁধটি ভেঙে যাওয়ার কারণে তলিয়ে গেছে চাষাবাদকৃত বিভিন্ন ফসল ও হুমকিতে পড়েছে কয়েক গ্রামের বাড়ি ও রাস্তাঘাট।

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আশফাউদ্দৌলা প্রিন্স বলেন, উজানের ঢলে তিস্তা নদীর পরিস্থিতি ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে। তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি জলকপাট খুলে রেখেও পানি সামাল দেওয়া যাচ্ছে না। আমরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজখবর রাখছি। পরিস্থিতি খারাপের দিকে গেছে।

যেকোনো সময় তিস্তা ব্যারাজের ফ্লাড ফিউজ বিধ্বস্ত হতে পারে। আমরা তিস্তা অববাহিকায় লাল সংকেত দিয়ে মানুষজনকে নিরাপদে আশ্রয় নিতে বলেছি।

নিউজবিজয় / এফএইচএন /২০ অক্টোবর ২০২১

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

দৈনিক লাল সবুজের ১১নং সেক্টর অব বাংলাদেশ - মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন নিউজবিজয়ে। আজই পাঠিয়ে দিন – newsbijoy.bd @gmail.com

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

উৎসর্গ করলাম আমার পরম শ্রদ্ধেয় বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যে সমৃদ্ধ হয়ে আমি আজ নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছি।

‘রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বাইয়ানি সাগিরা।’



জরুরি হটলাইন

 জরুরি হটলাইন

 

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

হট লাইন

 হট লাইন

ইমেলের মাধ্যমে ব্লগে সাবস্ক্রাইব করুন-

সর্বশেষ সংবাদের সাথে আপডেটেড থাকতে সাবস্ক্রাইব করুন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।তথ্য মন্ত্রণালয় আবেদনকৃত।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbanewsbijo41
বাংলা বাংলা English English