1. fhn.faruk@gmail.com : admin2020 :
  2. newsbijoy.bd@gmail.com : news bijoy : news bijoy
  3. newsbdn.bd@gmail.com : Fahim Hossaun : Fahim Hossaun
ইশা আন্দোলনের নেতার নামে হতদরিদ্রদের টাকা আত্নসাতের অভিযোগ - NewsBijoy
শনিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ০৭:৩৪ অপরাহ্ন

নিউজবিজয় এখন তিন ভাষায় পড়ুন – NewsBijoy Now Read in Three Languages


ইশা আন্দোলনের নেতার নামে হতদরিদ্রদের টাকা আত্নসাতের অভিযোগ

রেজাউল করিম রাজ্জাক, আদিতমারী (লালমনিরহাট) প্রতিনিধিঃ-
  • প্রকাশিত সময় :- রবিবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২১
ছবি: নিউজবিজয়.কম

লালমনিরহাট আদিতমারীতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ জেলা শাখার সেক্রেটারী ও আল হামিম পাবলিক লিঃ বীমার জেলা নির্বাহী পরিচালক শফিউল্লাহ মাহমুদির বিরুদ্ধে হতদরিদ্রদের কাছ থেকে বীমার সঞ্চিত কোটি টাকা আত্নসাতের অভিযোগ উঠেছে। শত শত ভুক্তভোগীরা টাকা ফেরত ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে (৩১ ডিসেম্বর) বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগে জানা গেছে, ২০০৭ সালে আল হামিম পাবলিক লিঃ নামে একটি কোম্পানির সাথে ১০ বছর চুক্তির ভিত্তিতে অর্থ বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বীমা খুলা হয় এবং গ্রাহকের সঞ্চয়ের আসল জমাকৃত টাকাসহ লাভ দ্বিগুন হবে সেই টাকা ফেরত দিবে মর্মে চুক্তির মাধ্যমে একটি কোম্পানী চালু করে।আর সেই কোম্পানীর কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপনার পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন ২২ মতিঝিল বা/এ, বিসিআইসি সনদ তয় তলা,ঢাকা-১০০০ এলাকার মৃত আব্দুল হাকিম মাতুব্বরের ছেলে এনামুল কবির। সেই মোতাবেক লালমনিরহাট জেলায় আল হামিম পাবলিক লিঃ নামে বীমা অফিসের জেলা জেনারেল ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন
আদিতমারী উপজেলার সাপ্টীবাড়ী ইউনিয়নের সরকারটারী এলাকার মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ জেলা শাখার সেক্রেটারী শফিউল্লাহ মাহমুদি। বিভিন্ন এলাকায় সঞ্চয়ের টাকা উত্তোলনের জন্য অনেক মাঠ কর্মি নিয়োগ দেওয়া হয়। মাঠ কর্মিদের মাধ্যমে পুরো জেলায় খেটে খাওয়া দিনমজুর,রিক্সাচালক, ভ্যানচালক ও নদীভাংগন এলাকার হতদরিদ্র সহজ সরল মানুষের কাছ থেকে মাসিক ৩ শত থেকে ১ হাজার টাকা সঞ্চয় তুলার মাধ্যমে তাদের কার্য্যক্রম শুরু করে। তাদের সঞ্চয়ের জমাকৃত টাকা ১০ বছরে আসলসহ লাভ দ্বিগুন দিবে বলে সঞ্চয় জমা নেওয়া শুরু করে। ২০০৭ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত পুরো জেলার প্রায় ১২ শত ৫০ জন গ্রাহকের জমাকৃত প্রায় ৪ কোটির মত সঞ্চয়ের টাকা কোম্পানী গ্রহণ করে থাকে। এদিকে মেয়াদ উর্ত্তীন্ন হওয়ার পর টাকা ফেরতের জন্য আবেদন করিলে অতপর কোম্পানী টাকা ফেরত দিবে না বলে জানিয়ে দেন জেলা জেনারেল ব্রাঞ্চ ম্যানেজারের দায়িত্ব পালনকারী ইসলামী আন্দোলনের নেতা শফিউল্লাহ। সাধারন মানুষ তাকে সরলতার সহিত বিশ্বাস করে তার কাছে টাকা জমা দেয়। পরে কেন্দ্রীয় কমিটি আল হামিম পাবলিক লিঃ শফিউল্লাহর কার্য্যক্রম ভুয়ামী বুঝতে পেরে কেন্দ্রীয় কমিটি ২০১৮ সালে চিঠির মাধ্যমে সংগঠনের সকল কর্মিদেরকে কোম্পানীর সকল প্রকার অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান থেকে বিরত থাকতে নিষেধাক্কা জারি করা হয়। তারপরও সে কেন্দ্রীয় কমিটির নিষেধাক্কার চিঠি গোপন করে সংগঠনের নাম ভাঙ্গিয়ে সকল সদস্যদের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করে আত্নসাৎ করে। এদিকে সাধারন গ্রাহকের টাকা কেন্দ্রীয় অফিসে জমা না করে শফিউল্লা আত্নসাত করে বিষয়টি জানার পর গ্রাহকরা তাদের টাকা ফেরত চাইতে গেলে সে কালক্ষেপন করে নিজেকে ধরাছোঁয়ার বাহিরে রেখে চলছেন। বিভিন্ন জায়গায় আত্নসাতকারী শফিউল্লার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শনসহ বিভিন্ন গন মাধ্যমে তার আত্নসাতের সংবাদ প্রকাশিত হয়।

অভিযোগকারী কালীগঞ্জ উপজেলার শিয়ালখোওয়া এলাকার ভুক্তভোগী অভিযোগকারী আল আমিন হক জানান, আল হামিম পাবলিক লিঃ বীমার মাঠ কর্মি হাদিউলের কাছ আমার বীমার জমাকৃত মাসিক ১ শত টাকা আরও দুজনের মাসিক ২ শত টাকা কর মোট দেড় লক্ষ টাকা জমা দেই। সেই টাকা আবার মাঠ কর্মি শফিউল্লার হাতে জমা দেয়। মেয়াদ শেষে জমাকৃত টাকা ফেরত চাইলে টাকা দেওয়া হবে বলে ঘুরাতে থাকে। কেন্দ্রের নির্দেশে বীমার সমস্ত কার্য্যক্রম বন্ধের নির্দেশ প্রদান করলেও শফিল্লাহ নির্দেশ অমান্য করে টাকা উত্তোলন করে আত্নসাত করে।

সদর উপজেলার হারাটি গ্রামের দিনমজুর রফিকুল ইসলাম জানান, অর্থনৈতিকভাবে আমি একজন বেকার যুবক। অন্য বাড়ীতে কাজ করে প্রতি মাসে ১ শত টাকা হারে ১০ বছরে আমার ৩৬ হাজার টাকা জমা হয় এবং কোম্পানীর নিয়ম অনুযায়ী দ্বিগুন ৭২ হাজার দিবে কিন্তু মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার অনেকদিন হল টাকা পাচ্ছিনা। আজকাল দিবে বলে বিভিন্ন তালবাহানা করছে। এখন কোম্পানী পালিয়ে গেছে কে দিবে আমার ঘাম ঝড়ানোর টাকা। তাই প্রসাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

আল হামিম পাবলিক লিঃ নামে বীমা অফিসের জেলা জেনারেল ব্রাঞ্চ ম্যানেজার ও জেলা ইশলামী আন্দোলনের সেক্রেটারি
শফিউল্লাহ মাহমুদির মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান,আমি কোম্পানীতে চাকুরী করেছি গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা উত্তোলন করে কোম্পানীর নিজস্ব হিসাব শাখায় টাকা জমা করা হয়েছে। আমি কোনরুপ এ ধরনের কার্য্যকলাপের সাথে জড়িত নয়। যাহা হয়েছে কোম্পানীর নামে হয়েছে। ২০০৯ সালে জয়েন্ট স্টকে নিবন্ধিত হওয়ার পর কোম্পানীটি ২০১৬ সাল পর্যন্ত নিয়মিত ছিল। পরে ব্যাপকভাবে সঞ্চয়ের মেয়াদ উত্তীর্ণ হতে শুরু করলে কোম্পানীর এমডি এনামুল হক কবির কোহিনুর ছলচাতুরীর আশ্রয় নেন। সমঝোতার জন্য কয়েক দফা বৈঠক করা হলে সর্বশেষ বৈঠকে তিনি টাকা ফেরত দিবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন। এ ঘটনায় ২০০৮ সালে এমডির বিরুদ্ধে লালমনিরহাট জেলা জজ আদালতে একটি মামলা করা হলে। আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে।

এ বিষয়ে আল হামিম পাবলিক লিঃ কোম্পানির এমডি এনামুল হক কবির কোহিনুরের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,২০১৩ সাল পর্যন্ত আমার কাছে কেন্দ্রীয় তহবিলে শফিউল্লাহ মাহমুদি টাকা জমা দেয়। পরবর্তীতে ২০১৮ সাল পর্যন্ত কিস্তির টাকা তুলে সে আত্নসাত করে।

জেলা প্রশাসক আবু জাফর অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন নিউজবিজয়ে। আজই পাঠিয়ে দিন – newsbijoy.bd @gmail.com

ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

উৎসর্গ করলাম আমার পরম শ্রদ্ধেয় বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যে সমৃদ্ধ হয়ে আমি আজ নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছি।

‘রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বাইয়ানি সাগিরা।’

আজকের এই দিনে আমাদের নিউজ বিজয়ের পথ চলা শুরু। নিউজ বিজয়ের সম্মানিত পাঠক, লেখক, শুভানুধ্যায়ী, সাংবাদিকসহ সবাইকে শুভেচ্ছা।

newsbijoy


All Bangla Newspaper

No description available.

জরুরি হটলাইন

 জরুরি হটলাইন

 

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

হট লাইন

 হট লাইন

ইমেলের মাধ্যমে ব্লগে সাবস্ক্রাইব করুন-

সর্বশেষ সংবাদের সাথে আপডেটেড থাকতে সাবস্ক্রাইব করুন।

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।তথ্য মন্ত্রণালয় আবেদনকৃত।
Copyright © 2015-2022 NewsBijoy.Com
themesbanewsbijo41