বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :-
ইতিহাসের এই দিনে: বৃহস্পতিবার,২৭শে ফেব্রুয়ারী,২০২০ইং কমে গেল ব্যাংক ঋণের সুদ, এপ্রিল থেকে কার্যকর নতুন রেট জয় বাংলার শ্লোগান দেশের বড় সম্পদ: গাইবান্ধায় প্রতিমন্ত্রী খালিদ এমপি ডিমলায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ “বিষপাতা আরেক নাম তামাক” সুজলা সুফলা মাঠে মাঠে ছেয়ে গেছে বিষবৃক্ষ তামাক চাষ শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানালেন চীনা প্রেসিডেন্ট কেউ অপরাধ করলে পার পাবে না : ওবায়দুল কাদের অভিনেতা সিদ্দিকের ছেলে মায়ের হেফাজতে থাকবে: হাইকোর্ট জাতিসংঘ আদালতে রোহিঙ্গাদের পক্ষে লড়বেন আমাল ক্লুনি কুড়িগ্রামে একটি রিভলভার সহ ৬ রাউন্ড গুলি উদ্ধার আজকের শিক্ষার্থীরাই আগামী দিনে দেশকে গড়ে তুলবে : প্রধানমন্ত্রী আজ দেশের কোথাও কোথাও বৃষ্টি হতে পারে হাতীবান্ধায় খাদ্য গুদামে কৃষকের নাম জালিয়াতি করে ধান বিক্রয় ডোমারে ঔষধ এর দোকানে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা গঙ্গাচড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি গ্রেফতার

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ বিমানের টিকিটসহ আকাশ পাওয়া যাচ্ছে:- উর্মি টেলিকম,আনন্দ মার্কেট হাতীবান্ধা,লালমনিরহাট। ফোন: ০১৭১৩৬৩৬৬৬১

Akash

পৃথিবী ধ্বংসের ইঙ্গিত দিচ্ছে রাশিয়ায় রহস্যময় গর্ত!

অনলাইন ডেস্ক :-
  • প্রকাশিত সময় :- বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০
  • ৩৭ বার পড়া হয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

রাশিয়ার উত্তর সাইবেরিয়ায় আচমকাই যেন গজিয়ে উঠেছিল বিশালাকার এমন বহু গর্ত। ২০১৪ সালে প্রথম হেলিকপ্টার থেকে নজরে পড়ে এগুলো। রহস্যজনক এই গর্তগুলো নিয়ে গবেষণা করার জন্য তারপর থেকেই বারবার সেখানে ছুটে গিয়েছেন গবেষকরা। কিন্তু রহস্যের নিশ্চিত সমাধান এখনো কেউ দিতে পারেননি।

কেউ মনে করেন, বিশালাকার উল্কা এই অংশে খসে পড়ে। তার থেকেই এমন গর্ত তৈরি হয়েছে। সময়ের সঙ্গে উল্কাগুলো ক্রমে মাটির নীচে প্রবেশ করে। এবং ওই অংশে এমন গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

কোনো বিজ্ঞানীর অনুমান, ভিনগ্রহীদের যান নেমেছিল এই অংশে। তখন থেকেই এমন গর্ত তৈরি হয়েছে। এমন নানা মতবাদ গজিয়ে উঠেছে গর্তগুলোকে ঘিরে। তবে এখনো পর্যন্ত সঠিক কোনো দিশা দেখাতে পারেননি বিজ্ঞানীরা।

এই নানা মতবাদের মধ্যে এ পর্যন্ত সবচেয়ে যেটা গ্রহণযোগ্য হয়েছে বিজ্ঞানীমহলে, তা হল প্রাকৃতিক গ্যাসের নির্গমন।

একদল বিজ্ঞানীদের যেমন ধারণা, প্রচন্ড চাপে এই অংশে মাটির নীচে প্রচুর পরিমাণে মিথেন গ্যাস জমে ছিল। সাইবেরিয়ার ক্রমশ বাড়তে থাকা তাপমাত্রার জেরে ওই গ্যাসের আয়তন বৃদ্ধি পায়। ফলে চাপ বাড়তে বাড়তে একসময় জোরে বিস্ফোরণ হয়েই এই গর্তগুলো সৃষ্টি হয়েছে।

এক একটা গর্ত ১০০ ফুট পর্যন্ত চওড়া এবং ৬০ ফুট পর্যন্ত গভীর এই অঞ্চলে। বিজ্ঞানীরা ওই সমস্ত গর্তের ভিতরে মিথেন গ্যাস উপস্থিতির প্রমাণও পেয়েছেন।

কিন্তু বিজ্ঞাণীদের এই তত্ত্বই যদি ঠিক হয়, তাহলে সারা বিশ্বের জন্যই খুবই চিন্তার বিষয় হবে। পৃথিবী ধ্বংসের ইঙ্গিতও হতে পারে এটা! এমনটাই জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

কারণ, বিষয়টা যদি তাপমাত্রা বৃদ্ধির ফলেই ঘটে থাকে, তাহলে তার কারণ বিশ্ব উষ্ণায়ন। এখন বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে দ্রুত সাইবেরিয়ার উপরে জমে থাকা সমস্ত বরফ গলতে শুরু করেছে।

ওই গর্তগুলোও দ্রুত পানিতে ভরে যাচ্ছে। আগামী ১-২ বছরের মধ্যে পানি পরিপূর্ণ হয়ে যাবে। তখন আর এই গর্তগুলোর রহস্য ভেদ করার জন্য গবেষণাও চালানো সম্ভব হবে না।

পৃথিবীর বুকে জমে থাকা বরফ পরিবেশে কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। কারণ এগুলো কার্বন গ্যাস শোষণ করে নেয়।

কিন্তু সাইবেরিয়ার ক্ষেত্রে ঠিক উল্টো পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। বাড়তে থাকা তাপমাত্রার জেরে মাটির নীচে জমে থাকা কার্বন ডাই অক্সাইড এবং মিথেন গ্যাস আরো বেশি পরিমাণে পরিবেশে মুক্ত হয়ে পড়ছে।

এই দুটোই গ্রিনহাউস গ্যাস। গ্রিনহাউস গ্যাস পরিবেশের তাপমাত্রা আরো বাড়িয়ে তুলছে এবং ফল হিসেবে আরো বেশি পরিমাণ গ্যাস পরিবেশে মুক্ত হতে সাহায্য করছে। সমগ্রিক ভাবে যার ক্ষতিকর প্রভাব এরইমধ্যে সাইবেরিয়ার ওই অঞ্চলে পড়তে শুরু করেছে বলে জানাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। সূত্র: আনন্দবাজার

নিউজবিজয়/এফএইচএন




ভালো লাগলে লাইক দিন, শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো সংবাদ




আর্কাইভ

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  

নামাজের সময়সূচি ;-

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১২ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৫ অপরাহ্ণ
  • ৪:২১ অপরাহ্ণ
  • ৬:০৩ অপরাহ্ণ
  • ৭:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ



উৎসর্গ করলাম আমার পরম শ্রদ্ধেয় বাবার নামে, যাঁর স্নেহ-সান্নিধ্যে সমৃদ্ধ হয়ে আমি আজ নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছি।

‘রাব্বির হামহুমা কামা রাব্বাইয়ানি সাগিরা।’

এখানে দেশ-বিদেশের অভ্যন্তরীণ সকল রুটের বিমানের টিকেট পাওয়া যায়।

উর্মি টেলিকম:- মোবাইল:-০১৭১৩৬৩৬৬৬১




© All rights reserved © 2015 newsbijoy।এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
themesbanewsbijo41